‘বিজেপিতে এত দুর্নীতি যে গুলিয়ে ফেলেছিলাম’ বললেন রাহুল

তাঁর নাম পানামা কেলেঙ্কারির সঙ্গে  জড়িয়ে দিয়েছেন রাহুল গাঁধী। আর তাতে বেজায় চটেছেন মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিংহ চৌহান। রীতিমতো মানহানি মামলার হুঁশিয়ারিও দেন। সোমবার মধ্যপ্রদেশে ভোটের প্রচারে এক জনসভায় গিয়েছিলেন রাহুল। সেখানে দাঁড়িয়েই দুর্নীতি নিয়ে চৌহান সরকারকে আক্রমণ করেন। শিবরাজের নাম না করে তিনি বলেন, “ ও দিকে চৌকিদার, আর এ দিকে  মামাজি। মামাজির আবার ছেলে আছে। সেই ছেলের নাম পানামা পেপারেও বেরোয়!”

রাহুলের এই মন্তব্যে বেজায় চটে যান শিবরাজ সিংহ। পাল্টা রাহুলকে আক্রমণ করে তাঁর অভিযোগ, রাহুল পুরোপুরি মিথ্যা বলছেন। ব্যাপম ও পানামা পেপার নিয়ে তিনি ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ তুলেছেন রাহুল তার কোনও ভিত্তি নেই। রাহুলের মন্তব্যের পরই তাঁর বিরুদ্ধে মানহানির মামলার হুমকি দেন শিবরাজ। সেই হুঁশিয়ারির কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে গিয়ে রাহুল বলেন, “বিজেপিতে এত দুর্নীতি যে আমি গুলিয়ে ফেলেছিলাম বিষয়টা। পানামা কেলেঙ্কারিতে নয়, শিবরাজ ব্যাপম কেলেঙ্কারিতে জড়িত।”

শিবরাজ সম্পর্কে রাহুলের এই মন্তব্য ভাল ভাবে নেয়নি বিজেপি। পাল্টা কংগ্রেসকে আক্রমণ করে তারা। বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয় বলেন, “মহাকাল মন্দিরে পুজো দিয়ে প্রসাদ খাওয়ার পরই রাহুল প্রেরণা পেয়েছেন, আর সে কারণেই ভুল বকছেন।”

রাজ্যে বিজেপির মুখপাত্র আবার রাহুলকে কটাক্ষ করে বলেন, “কংগ্রেসের সভাপতি হিসেবে রাহুল নৈতিক এবং আইনি ভাবে অপরাধ করে চলেছেন।”

Post a Comment

0 Comments