আত্মীয়রা আপনার ব্যাপারে নাক গলায়? এভাবে সামলান তাদের

ডিজিটাল ডেস্ক: নিজেকে আর নিজের পরিবারকে কে না ভালবাসে? প্রত্যেকের কাছেই আত্মীয়দের একটি বিশেষ জায়গা রয়েছে। কিন্তু যদি আপনার ব্যক্তিগত জীবনে তাঁরা নাক গলায়, তাহলে নিশ্চয়ই আপনার ভাল লাগবে না। সেটাই স্বাভাবিক। কিন্তু আত্মীয়দের মুখের উপর তো কটূ কথাও বলতে পারবেন না আপনি। এমন ক্ষেত্রে কী করবেন?

আত্মীয়দের সবথেকে বেশি আগ্রহ থাকে আপনার বিয়ে বা প্রেমজীবন নিয়ে। এক্ষেত্রে আত্মীয়দের চুপ করানোটা বাঞ্ছনীয়। কেউ কেউ জিজ্ঞাসা করার আগে দু’বার ভাবেন। কেউ আবার একবারও ভাবেন না। এমন হলে আপনিও কিন্তু এড়িয়ে যাবেন না। এরা কিন্তু সম্পূর্ণ কৌতূহলবশত প্রশ্ন করে। এদের অভ্যাসই হচ্ছে নাক গলানো। শুনতে খারাপ লাগলেও কথাটা নেহাত মিথ্যে নয়। তাই যা বলবেন, ভেবে বলুন। এদিকে উপযুক্ত জবাব দেওয়া অবশ্যই দরকার। কিন্তু তার আগে নিজেকে গুছিয়ে নিন। সে যদি আপনাকে কাউন্টার করে, তাহলে কী বলবেন, ভেবে রাখুন।

এসবের হাত থেকে বাঁচার একটি সহজ পথ রয়েছে। প্রশ্নের উত্তর দিন প্রশ্নের মাধ্যমেই। যেমন ধরুন, যদি কেউ আপনাকে জিজ্ঞাসা করে “কবে বিয়ে করছ?” আপনি উত্তরে বলুন, “যদি আমি নিজেই জানতাম। আপনার কাছে কি উপযুক্ত লাইফ পার্টনার আছে?” বলুন, আপনার জীবন কত বোরিং? একটা জিনিস মাথায় রাখুন। সবাই আপনার উপর তখনই আগ্রহ দেখায়, যদি তাদের থেকে আপনার জীবন আলাদা হয়। তাদের সেই আগ্রহ যাতে না বাড়ে, সেইদিকে খেয়াল রাখুন। যদি আপনাকে আপনার জীবন নিয়ে প্রশ্ন করা হয়, সরাসরি জানিয়ে দিন আপনি আলাদা ব্যক্তি নন। সবার মতো আপনার জীবনও বোরিং।
নিজের ব্যক্তিগত জীবনকে সবসময় ব্যক্তিগত রাখুন। এইসব আত্মীয়দের থেকে সবসময় একটু দূরত্ব রেখে চলুন। আপনার ব্যাপারে এদের একেবারেই নাক গলাতে দেবেন না। তাহলে হয়তো আপনি বেঁচেও যেতে পারেন। তাও যদি তাদের আগ্রহ তুঙ্গে থাকে, তাহলে স্পষ্টভাষায় জানিয়ে দিন আপনি এগুলি একেবারেই পছন্দ করেন না। তাতে যদি আপনি বেঁচে যান।

Post a Comment

0 Comments