ঋণ শোধ করতে না পেরে তিহার জেলে রাজপাল

ছবি তৈরি করবেন বলে পাঁচ কোটি টাকা ঋণ নিয়েছিলেন। কিন্তু তা শোধ দিতে না পারায় দোষী সাব্যস্ত হলেন বলিউডের অভিনেতা রাজপাল যাদব। দিল্লি হাই কোর্ট শুক্রবার তাঁকে তিন মাসের কারাবাসের সাজা শুনিয়েছে। তাই আগামী তিনমাস অভিনেতার ঠিকানা তিহার জেল।

জানা গিয়েছে, ২০১০-এ ওই টাকা দিল্লির এক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ধার নেন রাজপাল এবং তাঁর স্ত্রী রাধা যাদব। ‘আতা পাতা লাপতা’ নামের ছবিটি ২০১২-য় মুক্তিও পেয়ে যায়। কিন্তু পুরনো ধার আর শোধ দেননি অভিনেতা। ফলে আদালতে যান অভিযোগকারী ব্যবসায়ী। দিল্লি হাই কোর্ট পর্যন্ত গড়ায় তদন্তের জল৷ বেশ কয়েকবছর ধরে শুনানি চলে৷ শুক্রবার এই মামলায় রায় দেয় হাই কোর্ট৷ অভিনেতাকে তিন মাসের কারাদণ্ডের দেন বিচারক৷ আগামী তিন মাস  বিহারের তিহার জেলেই থাকতে হবে রাজপাল যাদবকে৷

প্রসঙ্গত, এর আগেও এই মামলায় তথ্য গোপন করার অভিযোগ ওঠে অভিনেতা রাজপাল যাদবের বিরুদ্ধে৷  এই অভিযোগে ২০১৩ সালে রাজপালকে তিনদিন তিহার জেলে কাটাতে হয়েছিল। পরে দিল্লির অন্য একটি আদালতে রাজপালের এক কোটি টাকা জরিমানা হয়। স্ত্রী রাধাকে দশ লক্ষ টাকা দিতে বলা হয়। তাঁরা চেক জমা দিলেও সেই চেক বাউন্স করে। এত কিছুর পর শুক্রবার অভিনেতাকে তিনমাসের জেলের সাজা শোনায় দিল্লি হাই কোর্ট।

Post a Comment

0 Comments