ষষ্ঠ বিদেশি সই করিয়ে ফেলল ইস্টবেঙ্গল

কথাবার্তা আগে থেকেই চলছিল। নির্বাসন উঠতেই নিজেদের ষষ্ঠ বিদেশি ফুটবলার সই করিয়ে ফেলল কোয়েস ইস্টবেঙ্গল। নতুন বিদেশি স্প্যানিশ ফুটবলার জেইমি স্যান্টোস কোলাডো। মূলত, অ্যাটাকিং মিডফিল্ডারের পজিশনে খেলেন ২৩ বছরের স্যান্টোস।


চলতি মরশুমে আই লিগে মিনার্ভা পাঞ্জাবের খেলোয়াড় সুখদেব সিংকে সই করানো নিয়ে নাটক চরমে ওঠে দুই প্রধানে। প্রথমে ইস্টবেঙ্গলে সই করার পরে মোহনবাগানে সই করেন সুখদেব সিং। ফলে ইস্টবেঙ্গল ফেডারেশনের কাছে মোহনবাগানের নামে অভিযোগ করে। অন্যদিকে আবার চুক্তির টাকা ক্লাবকে দেয়নি ইস্টবেঙ্গল, এই অভিযোগ তুলে ফেডারেশনের দ্বারস্থ হন মিনার্ভা পাঞ্জাব মালিক রঞ্জিৎ বাজাজ।

অবশেষে ফেডারেশন সিদ্ধান্ত নেয়, সুখদেব সিং ও ইস্টবেঙ্গল ক্লাব উভয়পক্ষকেই নির্বাসিত করার। নির্বাসনের শাস্তি ঘোষণার পর বারবারই ফেডারেশনের কাছে অনুরোধ করেছেন লাল-হলুদ কর্তারা। সেই নিয়ে একাধিকবার আলোচনায় বসেছে ফেডারেশন ও ক্লাব কর্তারা। অবশেষে ৭ লক্ষ টাকা জরিমানা করে নির্বাসন তুলে নেওয়া হয় ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের উপর থেকে।

আর নির্বাসন তুলে নেওয়ার দুদিনের মধ্যেই নিজেদের ষষ্ঠ বিদেশি সই করিয়ে ফেললেন লাল-হলুদ কর্তারা। স্প্যানিশ কোচ আলেজান্দ্রো মেনেন্দেজ ইস্টবেঙ্গলের দায়িত্ব নেওয়ার পর বিদেশি খেলোয়াড় হিসেবে সই করিয়েছেন স্প্যানিশ এনরিকে এসকুয়েদার ও বোরহাকে। ঘরোয়া লিগের দুই বিদেশি মহম্মদ আল আমনা ও কাশিম আইদারা এই মরশুমে এখনও পর্যন্ত পুরো ফিট নন। তাই মাত্র তিন বিদেশি নিয়েই খেলতে বাধ্য হচ্ছে ইস্টবেঙ্গল।

ষষ্ঠ বিদেশি হিসেবে সই করা জেইমি স্যান্টোস কোলাডোও কোচ আলেজান্দ্রো মেনেন্দেজের পছন্দের বলেই ক্লাব সূত্রে খবর। একই দেশের খেলোয়াড়দের মধ্যে কমিউনিকেশন ভালো থাকে বলেই হয়তো তিন স্প্যানিশ বিদেশি সই করালো ইস্টবেঙ্গল। কোচ নিজেও স্প্যানিশ। চলতি আই লিগে দুরন্ত ফর্মে থাকা চেন্নাই সিটি এফসি’রও পাঁচ বিদেশিই স্পেনের।

এখন দেখার ইস্টবেঙ্গলের এই নতুন স্প্যানিশ চতুর্ভুজ খেলার মাঠে ফুল ফোটাতে পারে কি না

Post a Comment

0 Comments