প্রেমিকার স্নানের দৃশ্য ভিডিও করেছিল বন্ধু, কুপিয়ে খুন

প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ার সময়ে বিশ্বাস করে ‘প্রিয়’ বন্ধুকে নিয়ে গিয়েছিল যুবক। কিন্তু বন্ধু  প্রেমিকার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ছবি তুলে রেখেছিল। শুধু তাই নয়, প্রেমিকার স্নান করার  দৃশ্যও ভিডিও করে রেখেছিল সে। আর তারপরই চলছিল ব্ল্যাকমেল। উদ্দেশ, বন্ধুর প্রেমিকাকে নিজের শয্যাসঙ্গিনী বানানো। বন্ধুর কীর্তি জানতে পেরে গিয়েছিল বছর বাইশের যুবক।  আর সেই কারণেই ‘প্রিয়’ বন্ধুকে কুপিয়ে খুন করে সে।  রায়গঞ্জের ব্যবসায়ী সুজন মণ্ডল খুনের ঘটনায়  মূল অভিযুক্ত মনোজ বিন পুলিসের কাছে তার অপরাধ কবুল করেছে।

প্রসঙ্গত, গত ১০ ডিসেম্বর রায়গঞ্জের পিপলান গ্রামের বাসিন্দা সুজন মণ্ডল খুন হন। বাড়ির অদূরেই তাঁর রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার হয়।  তদন্তে নামে পুলিস। তদন্তে নেমে রায়গঞ্জ থানার পুলিস সুজনের বন্ধু মনোজ বিনকে গ্রেফতার করে।

জেরায় খুনের কথা স্বীকার করে নেয় মনোজ। তার দাবি, সুজন তার ও প্রেমিকার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ছবি তুলে রেখেছিলেন। এমনকি সুজন মনোজের প্রেমিকার স্নানের দৃশ্যও মোবাইলে ভিডিও করে রেখেছিলেন। এরপর সেটা দেখিয়ে মনোজ ও তার প্রেমিকাকে ব্ল্যাকমেল করছিলেন সুজন। তারপরই সুজনকে খুনের ছক কষে মনোজ।

১০ ডিসেম্বর সকালে  বাজারে গিয়ে হাঁসুয়া কিনে আনে মনোজ। তারপর সুযোগ বুঝে সুজনকে ডেকে কোপায়। সুজনকে খুনের অভিযোগে মনোজকে গ্রেফতার করেছে পুলিস। হাঁসুয়াটিও মনোজের বাড়ি থেকে উদ্ধার করেছে।

Post a Comment

0 Comments