এ বার শ্রীনগরে ঢুকতে দেওয়া হল না ইয়েচুরিকে

কাশ্মীরে ঢুকতে পারলেন না সিপিএম-এর সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি। কংগ্রেস নেতা গুলাম নবি আজাদের মতোই শ্রীনগর বিমানবন্দরেই আটক করা হল তাঁকে। সঙ্গে আটক করা হয় সিপিআই নেতা ডি রাজাকেও।




কাশ্মীরের রাজ্যপাল সত্যপাল সিংহকে ইয়েচুরি ৮ অগস্ট জানিয়েছিলেন, তিনি তরিগামির সঙ্গে দেখা করতে চান।সিপিএম বিধায়ক ইয়ুসিদ তরিগামি এখন অন্যান্য কাশ্মীরি নেতার মতোই গৃহবন্দি। ইয়েচুরি চিঠিতে সত্যপাল সিংহকে অনুরোধ করেন, যাতে শান্তিপূর্ণ ভাবে কাশ্মীরে যেতে পারেন। ইয়েচুরির যুক্তি ছিল তরিগামি অসুস্থ, তিনি তাঁর সঙ্গে দেখা করতে চান।



কিন্তু তাতেও শেষরক্ষা হল না। শুক্রবার সকালে শ্রীনগরে পৌঁছনোর পরেই বিমানবন্দরে আটকে দেওয়া হয় তাঁকে। তাঁর সঙ্গে ছিলেন  সিপিআই নেতা ডি রাজা। এক সর্বভারতীয় সংবাদ সংস্থাকে ইয়েচুরি বলেন, ‘‘আইনি কাগজপত্র দেখিয়ে আমাকে এবং ডি রাজাকে শ্রীনগর শহরে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। আমরা চেষ্টা চালিয়েছি মধ্যস্থতা করার।’’ সিপিএম-এর তরফে গোটা ঘটনা তীব্র নিন্দা করা হয়েছে।

সিপিএম-এর টুইট:




বৃহস্পতিবার কংগ্রেসের রাজ্যসভার বিরোধী দলনেতা গুলাম  নবী আজাদকেও একই ভাবে আটক করা হয়েছিল শ্রীনগর বিমান বন্দরে। অনেকেই বলছিলেন কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভালকে নিয়ে মন্তব্য করার জেরেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কিন্তু এদিন ইযেচুরিরি ক্ষেত্রে ওই পদক্ষেপের পুনরাবৃত্তির ফলে পরিষ্কার, এই পরিস্থিতিতে কাশ্মীরে কোনও ভাবেই বাইরে থেকে কোনও রাজনৈতিক দলকে ইন্ধন জোগানোর সুযোগ দিতে চায় না কেন্দ্র।সিপিএম-এর তরফে এই পদক্ষেপকে বেআইনি বলেও মন্তব্য করা হয়েছে।

Post a Comment

0 Comments