ইস্ট বেঙ্গলের বাতিল উবেদের বাজিমাত, ইস্টবেঙ্গলকে টাই ব্রেকারে ৩-২ গোলে হারিয়ে ফাইনালে উঠল গোকুলাম কেরালা এফ সি

ইস্ট বেঙ্গলের বাতিল উবেদের বাজিমাত। টাই ব্রেকারে জোড়া সেভ।  সেমি ফাইনালে ইস্ট বেঙ্গলকে টাই ব্রেকারে ৩-২ গোলে হারিয়ে ফাইনালে উঠল গোকুলাম কেরালা এফ সি। ভারতে কোচিং করাতে এসে প্রথম ট্রফি জয়ের অপেক্ষা বাড়ল ইস্ট বেঙ্গলের স্প্যানিশ কোচ আলেসান্দ্রোর।


গোকুলামের মার্কাস, আন্দ্রে, কিসেকাদের বিরুদ্ধে শুরুতে একটু নড়বড়ে দেখাল আলেসান্দ্রোর দলকে। প্রথম দিকের গোকুলাম চ্যালেঞ্জ সামলে ১৮ মিনিটে সামাদের গোলে অবশ্য এগিয়ে যায় ইস্ট বেঙ্গল।  পিছিয়ে পরে সমতা ফেরাতে মরিয়া হয়ে ওঠে গোকুলাম। সুযোগ পেলেও কাজে লাগাতে পারেনি। প্রথমার্ধে ১-০ গোলে এগিয়ে থাকে ইস্ট বেঙ্গল।

দ্বিতীয়ার্ধে অবশ্য সেয়ানে সেয়ানে লড়াই চালায় দুই দল। বরং আক্রমণে অনেক বেশি ঝাঁঝ ছিল গোকুলামের।  ব্রুনো পেরিসিচ নামার পর আক্রমণে আরও গতি বাড়ায় গোকুলাম। এরপর ম্যাচের ইনজুরি টাইমে বক্সের মধ্যে হেনরি কিসেকাকে ফেলে দেন মেহতাব সিং। পেনাল্টির নির্দেশ দেন রেফারি।  লাল কার্ড দেখেন মেহতাব। স্পট কিক থেকে গোল করে যান গোকুলামের ত্রিনিদাদ ও টোবাগোর স্ট্রাইকার মার্কাস জোসেফ। নির্ধারিত সময়ে খেলার ফল ১-১। ম্যাচ গড়ায় এক্সট্রা টাইমে।

এক্সট্রা টাইমে ১০ জনে খেলতে থাকা ইস্ট বেঙ্গল এর বিরুদ্ধে চাপ তৈরি করে গোকুলাম।  খেলার ওপর নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয় কেরলের দলটি। ইস্ট বেঙ্গল গোল কিপার মিরসাদের বেশ কয়েকটি অনবদ্য সেভ লাল হলুদকে বাঁচিয়ে দেয়। এক্সট্রা টাইমেও ম্যাচের নিষ্পত্তি না হওয়ায় শেষ পর্যন্ত টাই ব্রেকার এ ম্যাচের মীমাংসা হয়।  টাই ব্রেকারে গত দুই মরশুম ইস্ট বেঙ্গলে খেলে যাওয়া গোল কিপার উবেদ জোড়া সেভ করলেন। টাই ব্রেকারে প্রথমেই লাল হলুদ অধিনায়ক লালরিনডিকার শট বারে লাগে।  মিরসাদ একটা গোল সেভ করলেও সেটা যথেষ্ট নয়। শেষ পর্যন্ত ৩-২ গোলে ম্যাচ জিতে নেয় গোকুলাম।

Post a Comment

0 Comments